সম্প্রতি দুর্ভিক্ষ কল্পনাকেও হার মানাচ্ছে,ক্ষুধার তাড়নায় শিশুরা খাচ্ছে পঙ্গপাল

দুর্ভিক্ষে পঙ্গপাল খেয়ে জীবনধারণ

বৈশ্বিক জলবায়ু সংকটের কারণে চার দশকের মধ্যে ভয়াবহ দুর্ভিক্ষ দেখা দিয়েছে দ্বীপরাষ্ট্র দক্ষিণ মাদাগাস্কারে। ফলে ক্ষুধার তাড়নায় পঙ্গপাল ও ক্যাকটাসের পাতা খাচ্ছে সেখানকার শিশুরা। এমন এক মানবিক বিপর্যয়ের চিত্র সামনে এসেছে।

জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির আওতায় পরিচালিত এক সমীক্ষা বলছে, দক্ষিণ মাদাগাস্কারের ৩০ হাজার মানুষ খাদ্য নিরাপত্তাহীনতার চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছেন। অবস্থা দৃষ্টে আগামীতে খাদ্য সংকট আরো বাড়বে।

ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম দ্য ইনডিপেন্ডেন্ট জানিয়েছে, চার দশকের মধ্যে ভয়াবহ খরা দেখা দিয়েছে দক্ষিণ মাদাগাস্কারে। ফলে খাবারের খোঁজে ঘরবাড়ি ছেড়ে অন্যত্র চলে যেতে বাধ্য হচ্ছেন সেখানকার হাজার হাজার বাসিন্দা। বাকিরা পঙ্গপাল ও ক্যাকটাসের পাতাসহ বিভিন্ন ধরনের লতাপাতা খেয়ে জীবন ধারণ করছেন।

সবচেয় ক্ষতিগ্রস্ত গ্রামগুলোর একটি ফান্ডিওভায় তিন সন্তান নিয়ে চরম জীবন সংগ্রামে লিপ্ত তামিরি। তারা পঙ্গপাল, ক্যাকটাস পাতা ও ‘ফক্স মিমোসা’ নামে একটি উদ্ভিদ খেয়ে জীবন ধারণ করছেন। তামিরি বলছেন, সকালে সন্তানদের হাতে তুলে দিচ্ছি পোকামাকড় দিয়ে তৈরি খাবার। এগুলো ধুয়ে দেয়ার মতো পানিটুকুও পাওয়া যায় না।


এভাবেই গত ৮ মাস ধরে বাচ্চাদের নিয়ে জীবিকা নির্বাহের কথা জানিয়ে তিনি আরো বলেন, দীর্ঘদিন বৃষ্টি না হওয়ায় খাওয়ার জন্য আর কিছুই অবশিষ্ট নেই। নতুন করে ফসল কবে নাগাদ ফলানো সম্ভব হবে, তাও বলা প্রায় অসম্ভব।

ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম বা ডব্লিউএফপি বলছে, চলতি বছরের সেপ্টেম্বর থেকে আগামী বছরের মার্চ পর্যন্ত দক্ষিণ মাদাগাস্কারে খাদ্য সরবরাহে ৭৮.৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রয়োজন। সংস্থাটির সদস্য শেলি ঠাকরাল বলেন, জলবায়ু সংকটের জন্য দায়ী না হওয়া সত্ত্বেও দ্বীপরাষ্ট্রটির বাসিন্দাদের নিদারুণ খাদ্য সংকটের শিকার হতে হচ্ছে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.