শিক্ষাপ্রতি,ষ্ঠান খুলে দেওয়া না হলে সেপ্টেম্বরে আন্দোলনের ডাক দেওয়া হবে : নূর

সেপ্টেম্বর থেকে দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন নুরুল হক নুর। তিনি বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া না হলে অভিভাবক এবং শিক্ষার্থীদের নিয়ে সেপ্টেম্বরে আন্দোলনের ডাক দেওয়া হবে। আজ শুক্রবার (১৩ আগস্ট) বিকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ভাসানী অনুসারী পরিষদ আয়োজিত সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু)

সাবেক ভিপি নুরুল হক নূর বলছেন, বাংলাদেশ ১৫ মাস ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। আজকে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা ছাড়াই অটোপাস দেওয়া হচ্ছে। এই অটোপাস মূলত তাদের ধ্বংস ডেকে আনছে। তিনি বলেন, এই সরকার আসলে টালবাহানা করে সময় কাটাতে চায়, শিক্ষা ব্যবস্থাকে ধ্বংস হচ্ছে সেদিকে কোনো মনোযোগ নাই। এখন পর্যন্ত অসংখ্যবার ডেট দিয়েও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে পারেনি কিংবা কোনো রোডম্যাপ দিতে পারেনি সরকার।

নুরুল হক অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বলেন, ছাত্রদের সঙ্গে সঙ্গে আপনারাও রাজপথে নামুন। আপনাদের সন্তানেরা হয়তো বুঝতে পারছে না দীর্ঘদিনের এই বন্ধের ফলে চাকরির বাজারে কী প্রভাব পড়বে, শিক্ষার এই ক্ষতিটা যে কত ভয়ানক। এই ক্ষতি থেকে শিক্ষার্থীদের বাঁচাতে হলে, দেশকে বাঁচাতে হলে সবাইকে রাজপথে নামতে হবে।নুরুল হক নূর বলেন, আজকে হাসপাতালে সিট নেই, মানুষ না খেয়ে মরছে কিন্তু সরকার করোনাকে কাজে লাগিয়ে কিভাবে ক্ষমতা দীর্ঘস্থায়ী করবে সেই চেষ্টা করছে। মানুষ বেঁচে থাকার জন্য সংগ্রাম করছে আর তুচ্ছ ঘটনাকে রং-চঙ মাখিয়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী বিভিন্ন সময় বিভিন্ন নাটকের অবতারণা করছে।

দেশে স্বাস্থ্যখাতে চরম অব্যবস্থাপনা চলছে। সরকারের চরম অব্যবস্থাপনা ও ব্যর্থতা ঢাকতে নামে বেনামে অভিযান পরিচালনা করছে। এসব অভিযান পরিচালনা করে সরকার গণমাধ্যমকে ব্যস্ত রাখছে। সমাবেশে অন্যদের মধ্যে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়ক জুনায়েদ সাকিসহ নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.