শঙ্কার মুখে বিরাট কোহলি, বিপদের দিনে এগিয়ে এলেন সৌরভ গাঙ্গুলি

টি২০-তে নেতৃত্ব থেকে সরে যেতে বাধ্য হয়েছেন কোহলি। ওয়ানডেতেও নেতৃত্ব প্রশ্নের মুখে পড়েছে। চলতি সপ্তাহেই ঠিক হয়ে যাবে বিরাট কোহলি জাতীয় ওয়ানডে দলের ক্যাপ্টেন থাকবেন কিনা। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের স্কোয়াড নির্বাচন করবেন চেতন শর্মার নেতৃত্বাধীন নির্বাচকরা।

দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনার নতুন ওমিক্রন প্রজাতির সন্ধান মেলায় বোর্ড সফরের ভবিষ্যৎ নিয়ে সন্দিগ্ধ ছিল। তবে বুধবারই বোর্ডের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে সূচি মেনেই দক্ষিণ আফ্রিকা সফর হচ্ছে।

২০২২ পুরোটাই টি২০ ময়। সামনের বছরই অস্ট্রেলিয়ায় টি২০ ওয়ার্ল্ড কাপ। বিশ্বকাপের আগে গোটা বছরে ভারতকে খেলতে হবে মাত্র ৯টা ওয়ানডে। এর মধ্যে ছয়টিই বিদেশে। দেশের মাটিতে টিম ইন্ডিয়া খেলবে মোট তিনটি ওয়ানডে।

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে কড়া বায়ো বাবল অপেক্ষা করছে নিরাপত্তা নিশ্ছিদ্র করতে। তার আগে তিন ফরম্যাটের জন্যই বড়সড় স্কোয়াড নির্বাচন করবেন নির্বাচকরা। তিন ফরম্যাট মিলিয়ে ২০-২৩ জনের স্কোয়াড গড়া হতে পারে।

বর্তমান ভারতীয় ক্রিকেটে আপাতত দুই ধরণের ভাবনা চালু রয়েছে। একাংশ মনে করে, সামনে যেহেতু খুব অল্প সংখ্যক ওয়ানডে খেলতে হবে, তাই কোহলিকেই নেতৃত্বে রেখে দেওয়া হোক।

অন্য অংশ আবার যুক্তি দিচ্ছে, সীমিত ওভারের সবেতেই রোহিতকে ক্যাপ্টেন রেখে এগোনো হোক- এতে ২০২৩-এ ওয়ানডে বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুত হতে পারবেন রোহিত।

দুই ভাবনার পক্ষে বিপক্ষে চূড়ান্ত আলোচনা চলছে। তবে কোহলির ভাগ্য চূড়ান্ত করবেন স্বয়ং বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং সচিব জয় শাহ।

মাল্টি নেশন ইভেন্টে ক্যাপ্টেন কোহলির একের পর এক ব্যর্থতায় তাঁর হয়ে বর্তমানে বলার মত খুব কম লোক-ই রয়েছে।

বুধবার সংবাদসংস্থা-কে বোর্ডের এক শীর্ষকর্তা জানান, “আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের দল ঘোষণা করে দেওয়া হবে।

আমাদের তরফে সমস্ত প্রস্তুতি নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের সবুজ সংকেতের অপেক্ষায় থাকা হবে। যদি শেষ মুহূর্তে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে এই সফর বাতিল করার কথা বলা হয়, সেটাই করা হবে। তবে তার আগে স্কোয়াড নির্বাচন করে আমরা তৈরি থাকব।”

চলতি সপ্তাহের শনিবার বোর্ডের এজিএম বসছে কলকাতায়। সেখানে চেতন শর্মার নির্বাচনী মন্ডলীর মেয়াদ পুনর্নবীকরণ করা হবে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.