রাহুল দ্রাবিড়ের যে ৫ টি বিশ্ব রেকর্ড কোন প্লেয়ারের অতিক্রম করা সম্ভব নয়

ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা রাহুল দ্রাবিড়কে একজন আদর্শ টেস্ট খেলোয়াড় মনে করলেও তিনি টেস্টের পাশাপাশি ওয়ানডে ক্রিকেটেও ১০ হাজার রানের গণ্ডি পার করেছেন।

এমনকি ১৯৯৯ বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ৪৭১ রান সংগ্রহ করে টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় হন। তার টেস্ট পরিসংখ্যানের কথা বললে, ১৬৪ টেস্টে ৫২.৩০ গড়ে ১৩,২৮৮ রান করেছেন।

এই প্রতিবেদনে, দ্রাবিড়ের এমন পাঁচটি টেস্ট রেকর্ডের কথা বলা হয়েছে যা হয়তো কারও পক্ষে জানা সম্ভব নয়। এবার দেখে নেওয়া যাক:

টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে সর্বাধিক শতরানের পার্টনারশিপ রয়েছে রাহুল দ্রাবিড়ের নামে। তিনি তার সতীর্থদের সাথে মোট ৮৮ বার শতরানের পার্টনারশিপ গড়েন।

যার মধ্যে সর্বোচ্চ শচীন টেন্ডুলকারের সাথে ২০ বার শতরানের পার্টনারশিপ রয়েছে। যেখানে তাদের জুটিতে ১৪৩টি ইনিংসে ৬৯২০ রান ওঠে।

২০০২ সালে ইংল্যান্ড সফরে ভারতীয় দলের হয়ে রাহুল দ্রাবিড় দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছিলেন। টানা চারটি টেস্টে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে একমাত্র ভারতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে রেকর্ড করেছেন।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টানা তিনটি সেঞ্চুরি করেন, যথাক্রমে – ১১৫ রান, ১৪৮ রান ও ২১৭ রান এবং এর পরের টেস্ট সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিপক্ষে তিনি ১০০ রানে অপরাজিত ছিলেন।

□ ফিল্ডার হিসেবে সর্বাধিক ক্যাচ: ২১০ টি

ক্রিকেটীয় ভাষায় বলা হয়ে থাকে, ‘catches win you matches’, অর্থাৎ আপনি ক্যাচ ধরুন ম্যাচ জিতুন। কখনো কখনো মাঠের ফিল্ডাররা ম্যাচের গতিপথ বদলে দিতে পারেন।

এই তালিকায় রাহুল দ্রাবিড় রয়েছেন সবার শীর্ষে। তিনি অসাধারণ ফিল্ডিংয়ের পাশাপাশি সর্বোচ্চ ২১০টি ক্যাচ নিয়েছেন, যা কোনও ফিল্ডারের চেয়ে বেশি।

□ সর্বাধিক বলের মুখোমুখি: ৩১,২৫৮ বল

টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে সর্বাধিক বলের মুখোমুখি হয়েছেন ‘দ্যা ওয়াল’ খ্যাত রাহুল দ্রাবিড়। তিনি তার ১৬ বছর ক্রিকেট ক্যারিয়ারে ১৬৪ টেস্টে ৩১,২৫৮টি বলের মুখোমুখি হয়েছেন, যা একটি বিশ্বরেকর্ড।

২২ গজের মধ্যে প্রতিপক্ষ বোলারদের বিপক্ষে যেভাবে তিনি লড়াই করেছেন তা আজকালকার টি-টোয়েন্টি খেলার ব্যাটসম্যানেরা কল্পনাও করতে পারবেন না।

□ দীর্ঘ সময় ব্যয়: ৪৪,১৫২ মিনিট

রাহুল দ্রাবিড় ২২ গজের ধৈর্যের পরীক্ষা দিয়েছিলেন, তাকে একজন আদর্শ টেস্ট খেলোয়াড় হিসেবে বিবেচিত করেছে। দ্রাবিড়ের দক্ষতা তাকে বিশ্রাম থেকে আলাদা করেছিলো যে কারণে তিনি ঘন্টার পর ঘন্টা ক্রিজে টিকে থাকতেন।

টেস্ট ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী নাও হতে পারেন কিন্তু টেন্ডুলকারের থেকেও ক্রিজে বেশি সময় অতিবাহিত করেছেন। দ্রাবিড় তার পুরো ক্যারিয়ারে মোট ৪৪,১৫২ মিনিট ব্যাটিং করেছেন, যা একটি বিশ্বরেকর্ড।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.