রাহুলের নিলামে যাওয়ার সিদ্ধান্তকে সম্মান করিঃ অনিল কুম্বলে

পাঞ্জাব কিংসের (পিবিকেএস) প্রধান কোচ অনিল কুম্বলে বলেছেন যে পিবিকেএস আইপিএল ২০২২ মেগা নিলামের আগে কেএল রাহুলকে রিটেইন করে দলে রাখার পরিকল্পনা করেছিল, তবে তিনি রাহুলের নতুন দল খুঁজে নেওয়ার সিদ্ধান্তকে সম্মান করেন। আগে থেকেই জল্পনা ছিল যে রাহুল চান না পাঞ্জাব-ভিত্তিক দল তাঁকে ধরে রাখুক এবং ৩০শে নভেম্বর মঙ্গলবার রিটেনশন প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার পরে এটি নিশ্চিত হয়ে যায়।

রাহুল ২০১৮ সালে বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর ছেড়ে পিবিকেএসে যোগ দেন। ব্যাট হাতে দুটি দুর্দান্ত মরসুমের পরে, রাহুলকে ২০২০তে তাদের অধিনায়ক হিসাবে মনোনীত করা হয়েছিল, রবিচন্দ্রন অশ্বিনের পরিবর্তে। ফ্র্যাঞ্চাইজি অশ্বিনকে ছেড়ে দেয়, তিনি দিল্লী ক্যাপিটালসে যোগ দেন।

রাহুলের নিলামে যাওয়ার সিদ্ধান্তকে সম্মান করিঃ অনিল কুম্বলে
তবে অধিনায়ক হিসেবে তিনি তাঁর দলের ভাগ্য পরিবর্তন করতে ব্যর্থ হন। পাঞ্জাব কিংস পরবর্তী দুটি মরসুমেও প্লে অফে উঠতে পারেনি। কুম্বলে বলেছেন যে রাহুলকে ঘিরে পিবিকেএসের বড় পরিকল্পনা ছিল এবং তাই তাঁকে ফ্র্যাঞ্চাইজির অধিনায়ক হিসাবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল।

“অবশ্যই আমাদের কাছে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ছিল রাহুলকে ধরে রাখা। স্পষ্টতই, আমরা তাকে ধরে রাখতে চেয়েছিলাম। ২ বছর আগে আমরা তাকে অধিনায়ক হিসেবে এই কারণেই বেছে নিয়েছিলাম, যাতে সে দলের কেন্দ্রে থাকতে পারে। সে নিলামে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, আমরা সেই সিদ্ধান্তকে সম্মান করি। এটি তার ব্যক্তিগত অধিকার,” ইন্ডিয়া টুডেতে কুম্বলেকে উদ্ধৃত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার ১৪ কোটি টাকায় পাঞ্জাব কিংস তাদের প্রথম পছন্দ হিসেবে ধরে রেখেছিল মায়াঙ্ক আগরওয়ালকে। তাঁর জন্য কুম্বলের কাছ থেকে প্রশংসার শব্দ পাওয়া গেছে। জাম্বো নামে পরিচিত কুম্বলে বলেছেন যে ভবিষ্যতে দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে আগরওয়ালের।

“মায়াঙ্কের প্রসঙ্গে বলা যায়, সে গত ৩ থেকে ৪ বছর আমাদের সাথে যুক্ত ছিল এবং সে আমাদের হয়ে অত্যন্ত ভালো পারফর্ম করেছে। দুই বছর ধরে আমি ফ্র্যাঞ্চাইজির সাথে জড়িত, সে খুব, খুব সফল হয়েছে। সে একজন সম্ভাব্য নেতাও। সে দীর্ঘকাল ধরে আইপিএল এবং আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে,” কুম্বলে শেষে বলেছেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.