ভারতের সিরিজ জয়ের আসা ভঙ্গ, বৃষ্টিতে চুরমার স্বপ্ন-হতাশ হয়ে এবার থেকে ভারতে সিরিজ করার দাবি ভক্তদের!

ওডিআই সিরিজের প্রথম ম্যাচ হারের পর হ্যামিল্টনে দ্বিতীয় একদিনের ম্যাচে মুখোমুখি ভারত এবং নিউজিল্যান্ড। টি-২০ বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে হারের পর কিউইদের দেশে কুড়ি-বিশের সিরিজে ঘুরে দাঁড়িয়েছেলো ‘টিম ইন্ডিয়া।’ কিন্তু একদিনের সিরিজ শুরু হতেই আবার পালটে গিয়েছে ছবিটা। মূলত বোলিং অনভিজ্ঞতা আর নিউজিল্যান্ড মিডল অর্ডারের হার না মানা ব্যাটিং-এর সামনে পড়ে দিশা হারিয়েছে ভারতীয় দল।

রোহিত শর্মা নেই, নেই কোহলি বা কে এল রাহুলের মত ভারতের রথি-মহারথী’রা। এই অবস্থায় তরুণ তুর্কিদের নিয়েই দল সাজিয়েছেন অধিনায়ক শিখর ধাওয়ান। সিরিজে টিকে থাকতে গেলে আজ একটা জয় একান্তই প্রয়োজন ভারতীয় দলের অন্যদিকে রয়েছে ব্ল্যাক ক্যাপস’রা।

ঘরের মাঠে টানা ১৩ ম্যাচ জিতে আত্মবিশ্বাসের তুঙ্গে রয়েছেন কেন উইলিয়ামসন’রা। নিজেদের রেকর্ড আরও খানিক উন্নত করে নিতে চাইবেন তাঁরা। আজকের ম্যাচ জিতলে ২-০ ফলে এগিয়ে সিরিজ’ও ঢুকে পড়তে পারে কিউইদের পকেটে। একদিনে সিরিজ জয়ের হাতছানি আর বিপরীত অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই, সব মিলিয়ে হ্যামিল্টনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হওয়ার সম্ভাবনা। তবে বাধ সেধেছে প্রকৃতি।

খেলা বন্ধ ছিলো বেশ কিছুক্ষণ। বৃষ্টিতে ম্যাচ ভেস্তে গেলে শেষ হয়ে যাবে ভারতের সিরিজ জয়ের স্বপ্ন’ও। প্রথম একদিনের ম্যাচটি হারার পর হ্যামিল্টনে আজকের খেলাটি জিততেই হত ভারত’কে। নাহলে সিরিজ জেতার আশা ছাড়তে হবে ‘টিম ইন্ডিয়া’কে। ম্যাচ জয়ের লক্ষ্যেই তরুণ ব্রিগেড’কে নিয়ে মাঠে নেমেছেন অধিনায়ক শিখর ধাওয়ান।

গত ম্যাচের একাদশে দুটী পরিবর্তন ঘটিয়ে দলে এনেছেন দীপক চাহার এবং দীপক হুডা’কে। অকল্যান্ডের অন্ধকার কাটিয়ে জয়ের দীপ জ্বালাবেন দু’জনে, ভাবনা ছিলো এমনই । কিন্তু বাস্তবে চিত্র’টা যত সময় যাচ্ছে ভারতের জন্য কঠিন হয়ে উঠছে। বাইশ গজে কিউই বোলারদের জন্য প্রস্তুত ছিলেন ভারতের ব্যাটার’রা।

কিন্তু ভারতের জয়ের আশা নেভাতে মাঠে নেমেছে আবহাওয়া। সকাল থেকেই বৃষ্টি হচ্ছে হ্যামিল্টনে। দীর্ঘক্ষণ খেলা বন্ধ ছিলো। তারপর আবার শুরু হলেও, ভিলেন হয়ে পুনঃপ্রবেশ ঘটিয়েছে বৃষ্টি। এই অবস্থায় ম্যাচ হয়ত এগোতে পারে ভেস্তে যাওয়ার দিকে। তিন ম্যাচের সিরিজের প্রথমটি বোলিং অনভিজ্ঞতার দরুণ হেরেছে ভারত।

আজকে না জিতলে সিরিজ জয়ের কোনো রাস্তা খোলা থাকবে না ভারতের কাছে। স্বভাবতই হতাশ ভারতের ক্রিকেট সমর্থক’রা। বিদেশের মাঠে একদিনের সিরিজ জিতে আসন্ন ২০২৩ বিশ্বকাপের আগে আত্মবিশ্বাস অর্জন করবে তরুণ দল, এমনটাই আশা করেছিলেন তাঁরা। কিন্তু প্রকৃতির কাছে হেরে সেই আশা হতাশায় পর্যবসিত হওয়ার মুখে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.