বিজয় হাজারে ট্রফিতে দুর্দান্ত পারফর্ম্যান্স চেন্নাই সুপার কিংসের তারকার

এখনই তারকা তকমা পেয়ে গিয়েছেন নিজের পারফর্ম্যান্স দিয়ে। তবে ভবিষ্যতের মহাতারকা হয়ে ওঠার বিস্তর সম্ভাবনা রয়েছে রুতুরাজ গায়কোয়াড়ের মধ্যে। তাঁকে কেন দুরন্ত প্রতিভা হিসেবে বিবেচনা করা হয় ভারতীয় ক্রিকেটমহলে, ব্যাট হাতে সেটা আরও একবার প্রমাণ করলেন রুতুরাজ। চলতি বিজয় হাজারে ট্রফির প্রথম দু’ম্যাচে পরপর সেঞ্চুরি করে মহারাষ্ট্রকে জেতােলেন চেন্নাই সুপার কিংসের তারকা ওপেনার।

গত আইপিএলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী হয়ে জিতে নিয়েছেন অরেঞ্জ ক্যাপ। টুর্নামেন্টের সেরা উঠতি ক্রিকেটারের পুরস্কারও জিতেছেন গায়কোয়াড়। স্বাভাবিকভাবেই এমন পারফর্ম্যান্সের পর চেন্নাই সুপার কিংস তাঁকে মেগা নিলামের আগে ধরে রাখতে বাধ্য হয়। এবার বিজয় হাজারে ট্রফিতে দুর্দান্ত পারফর্ম্যান্স উপহার দিয়ে রুতুরাজ বুঝিয়ে দিলেন, সিএসকে তাঁকে ধরে রেখে ভুল করেনি।

রাজকোটে এলিট গ্রুপ-ডি’র প্রথম ম্যাচে রুতুরাজ গায়কোয়াড় মধ্যপ্রদেশের বিরুদ্ধে ১৪টি চার ও ৪টি ছক্কার সাহায্যে ১১২ বলে ১৩৬ রান করে আউট হন। মাহারাষ্ট্র ম্যাচ জেতে ৫ উইকেটের ব্যবধানে। বৃহস্পতিবার ছত্তিশগড়ের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামে মহারাষ্ট্র। রুতুরাজ ১৫৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। ১৪৩ বলের ইনিংসে তিনি ১৪টি চার ও ৫টি ছক্কা মারেন।

প্রথমে ব্যাট করে ছত্তিশগড় নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেটের বিনিময়ে ২৭৫ রান তোলে। অমনদীপ খাড়ে ৮২ ও শশাঙ্ক সিং ৬৩ রান করেন। ২টি উইকেট নেন রাহুল ত্রিপাঠী। জবাবে ব্যাট করতে নেমে মহারাষ্ট্র ৪৭ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ২৭৬ রান তুলে নেয়। রাহুল ত্রিপাঠী ২৩ রানে অপরাজিত থাকেন। ৮ উইকেটে ম্যাচ জেতে মহারাষ্ট্র।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.