পাকিস্তানের জার্সি পড়ার কারনে নালাতেই কান ধরে ক্ষমা চেয়ে জার্সি খুলেছেন ওই তরুণ

চট্টগ্রামে চলছে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যকার প্রথম টেস্ট। এই ম্যাচ চেয়ে চলাকালীন সময়ে এক অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। পাকিস্তানের জার্সি পড়ে বিপাকে পড়েছেন এক তরুণ। শেষ অব্দি ধাওয়া খেয়ে জান বাঁচাতে নোংরা নালায় লাফ দেন তিনি। এরপর নালাতেই কান ধরে ক্ষমা চেয়ে জার্সি খুলেছেন ওই তরুণ।

আজ এগারোটার দিকে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যকার টেস্ট ম্যাচ চলাকালে চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের সামনে ঘটে এমন ঘটনা। পাকিস্তানের জার্সি গায়ে দেওয়া তরুণের নাম জানা যায়নি।

জানা গেছে, পাকিস্তানি জার্সি গায়ে কেউ স্টেডিয়ামে এলে প্রতিহত করা হবে, এমন ঘোষণা বেশ কয়েকদিন আগেই দিয়ে রাখেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কর্মীরা। ঘোষণা অনুযায়ী তারা সকালে অবস্থান নেন স্টেডিয়াম-সংলগ্ন সড়কে। এ সময় বাংলাদেশি সমর্থকদের সঙ্গে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করতে চান পাকিস্তানি জার্সি পরিহিত তরুণ। তখন তাকে ঘিরে ধরেন মঞ্চের কর্মীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, স্টেডিয়ামের প্রবেশপথে মঞ্চের কর্মীদের সঙ্গে ওই তরুণ তর্কে জড়ান। পরে কর্মীরা জোরপূর্বক পাকিস্তানের জার্সি ছিঁড়ে তার গা থেকে খুলে নেন। এ সময় মারধরের ভয়ে দৌড়াতে শুরু করেন ওই তরুণ। পরে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পড়েন সড়কের পাশে থাকা নালায়। সেখান থেকে কান ধরে ক্ষমা চান তিনি। এরপর এক নারীর সহায়তায় নালা থেকে উঠে সিএনজিচালিত অটোরিকশা নিয়ে বাসায় চলে যান ওই তরুণ।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সভাপতি কাজী মো. সাইফুল ইসলাম রাসেল জানিয়েছেন, ‘ঘোষণা অনুযায়ী আজ খেলা শুরুর আগে থেকেই মাঠের প্রবেশপথে আমরা অবস্থান নিই। এক তরুণ পাকিস্তানি জার্সি পরে মাঠে প্রবেশের চেষ্টা করেন। প্রথমে আমরা তাকে বোঝাতে চেষ্টা করি। কিন্তু তিনি রাজি হননি। পরে তার শরীর থেকে পাকিস্তানি জার্সি খুলে নেন আমাদের কর্মীরা।’

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.