পরীমনির অন্ধকার অতীত, নতুন গো’পন ছবি ভা’ইরাল

অভিনেত্রী পরীমনি। যাকে নিয়ে আলোচনার শেষ নেই। তারকা মানেই তার অতীত জীবন নিয়ে একটু না’ড়াচা’ড়া হবে- এটাই স্বাভাবিক।

আর সেই বাস্তবতায় সবার মুখে মুখে পরীমনির ছোটবেলা, সিনেমার আগের জীবন এবং ঢাকাই ইন্ডাস্ট্রিতে পা দেয়ার পরের নানা ঘটনা সবার মুখে মুখে।

এমনকি তার কথিত ‘স্বামীর’ সঙ্গে বেশকিছু ছবি এখনও ভে’সে বেড়ায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। পরীমনির ছোটবেলা ও পড়াশোনা: ১৯৯২ সালে সাতক্ষীরা জেলায় জন্মগ্রহণ করেন পরীমনি।

শামসুন্নাহার স্মৃতি তার আসল নাম। ছোটবেলায় মা সালমা সুলতানা ও বাবাকে হা’রানো’র পর পরীমনি বড় হয়েছেন নানা শামসুল হক গাজীর কাছে। ছোটবেলা থেকে ‘পরী’ বলেই ডাকতেন তাকে। কাছের মানুষরাই পরীর সঙ্গে ‘মনি’ যোগ করেছেন।

কিন্তু তার বাবা ‘স্মৃতি’ নামেই ডাকতেন। পরীমনি বললেন, আমার জন্মের আগেই বাবা নাম ঠিক করে রেখেছিলেন। মেয়ে হলে রাখার কথা ছিল ‘স্মৃতি’। কিন্তু নামটা এখন হা’রিয়ে গেছে। যা ভেবে এখনও খারাপ লাগে আমার। এসএসসি পর্যন্ত বরিশালে পড়াশোনা করেছেন।

সেখান থেকেই তিনি তার মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শেষ করেন। সাতক্ষীরা সরকারি কলেজে বাংলা বিভাগের ছাত্রী ছিলেন।

পর্দায় পরী: ২০১১ সালে ঢাকায় চলে আসেন এবং বাফায় নাচ শেখেন। এর আগের জীবনকে পরিমনী নিজেই বলেছেন ‘অন্ধকার’। কারণ সেই সময়ে তিনি নিজের স্বপ্ন পূরণ করতে পারেননি।

ঢাকায় এসে মডেলিংয়ের মাধ্যমে কর্মজীবন শুরু করেন তিনি। বিভিন্ন নৃত্যানুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন এবং টিভি নাটকে অভিনয় করেন পরীমনি।

মডেলিং থেকে ছোটপর্দায় এবং তারপর রূপালী পর্দায় অভিনয় শুরু করেন পরীমনি। অভিনয় জীবন শুরু করেন টিভি নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমে।

তিনি ‘সেকে’ণ্ড ইনিংস’, ‘এক্সক্লুসিভ’, ‘এক্সট্রা ব্যাচেলর’ ও ‘নারী ও নবনীতা তোমার জন্য’ নামের ধারাবাহিক নাটকে কাজ করেছেন।

২০১৫ সালে ভালোবাসা সীমাহী’ন সিনেমার মাধ্যমে তার বড়পর্দায় অভিষেক হয়। রানা প্লাজা (২০১৫) ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়ে তিনি আলোচনায় আসেন।

তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য সিনেমা হল ‘আরো ভালোবাসবো তোমায়’, ‘মহুয়া সুন্দরী’, ‘র’ক্ত’, ‘স্বপ্নজাল’ ও ‘বিশ্ব সুন্দরী’।

ছবি নিয়ে তোলপাড়: পরীমণির সিনেমায় আসার আগের জীবনে তার কথিত ‘স্বামীর’ সাথে অন্তরঙ্গ বেশকিছু ছবি এখনও ভেসে বেড়ায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। স্বভাবতই এই নায়িকাকে নিয়ে দর্শকদের আছে ব্যাপক কৌতূহল।

ছবি প্রকাশকারীর দাবি, অ’ন্তর’ঙ্গ ছবিগুলোর সঙ্গে থাকা যুবক পরীর স্বামী। বিষয়ে নিয়ে পরীমনি তখন মুখও খুলেছিলেন।

তিনি বলেন, ‘এরকম ছবি আমার হাজার মানুষের সঙ্গে আছে। তার মানে এই না যে তারা আমার স্বামী। আর কি এসব ছবিতে কি আমি বউ সেজে বাসর ঘরে বসে আছি?’

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.