দীনেশ কার্তিক, মর্গ্যান দের মতো কি শ্রেয়াস আয়ারকেও বাদ দেওয়া হবে দল থেকে? নেট দুনিয়ায় KKR অধিনায়কের জন্য নাইট সমর্থকদের সতর্কবার্তা

কলকাতা নাইট রাইডার্স তাদের গত ম্যাচ খেলেছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এর বিরুদ্ধে এবং অবশেষে বড় জয়ও পেয়েছে তারা। আর এই জয়ের কারণে প্লেঅফের আশা এখনও বেঁচে রয়েছে।

কিন্তু গত ম্যাচে নামার আগে KKR মোট পাঁচটা পরিবর্তন করে এবং যেই পরিবর্তন দলকে সাফল্য এনে দিয়েছে। এই জয়ের ফলে নবম স্থানে থেকে সপ্তম স্থানে উঠে এসেছে তারা। তবে বাকি দলগুলোর সঙ্গে তুলনা করলে নাইটদের পক্ষে প্লে অফে যাওয়াটা এখনও যে যথেষ্ট কঠিন।

সেকথাই মনে করছেন ক্রিকেট সমর্থকেরা। তবে এই ম্যাচে সবথেকে সন্তোষজনক হল দলের ওপেনারদের রান পাওয়া। ভেঙ্কটেশ আইয়ার ৪৩ রান করেন, অজিঙ্কা রাহানে করেন ২৫ রান। ওপেনিং জুটি ৬০ রান করে। নীতিশ রানা করেন ৪৩ রান।

অন্যদিকে দীর্ঘদিন ধরে উইকেট খরা চলতে থাকা প্যাট কামিন্স তিনটি উইকেট নেন এবং দেন ২২ রান। এক ওভারে ৩ উইকেটের সুবাদেই মুম্বইয়ের রান তোলার গতি স্লো হয়ে যায় ও KKR খুব সহজেই সেই ম্যাচ জিতে যায়।

ম্যাচ শেষে শ্রেয়াস আইয়ার জানিয়েছিলেন- “এই জয়ের ফলে তিনি খুশি নন, তবে তিনি জয়ের ধারাটা চালিয়ে যেতে চান। সেখানে তিনি জানান, যে প্রথম একাদশ তৈরিতে দলের CEO ভেঙ্কি মাইসোর হস্তক্ষেপ করেন।”

এতদিনে শ্রেয়স আইয়ার মুখ খোলায় সর্মথকরা তার প্রশংসা করেছেন। অনেকে লিখেছেন- “অবশেষে শ্রেয়স সত্যি কথাটা বলার সাহস দেখাতে পারলেন এটার জন্য তাঁকে ধন্যবাদ।”

এক সমর্থক লেখেন- “রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে জয়ের পর কোচ ইঙ্গিত দিয়েছিলেন যে দল গঠনের সিদ্ধান্ত তিনি একা নেন না। যদিও সেখানে তিনি সরাসরি কারণ নাম নেননি। এইবার শ্রেয়স আইয়ার সেই নামটা নিলেন।”

এক সমর্থক বলেন- “আমি যতটা ক্রিকেট বুঝি তাই দেখে আমার মনে হয় CEO-র কখনই দল নির্বাচনে নাক গলানো উচিত নয়। দলের কোচের উচিত দল গঠন করা।”

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.