টেস্ট ক্রিকেটে হ্যাটট্রিক নেওয়ার কৃতিত্ব অর্জন করেছেন যে তিন ভারতিও বোলার

ক্রিকেটের যে কোন ফরম্যাটে হ্যাটট্রিক নেওয়া বোলারদের কাছে কোন স্বপ্ন পূরণের চেয়ে কম নয়। টেস্ট ক্রিকেটে এখনও পর্যন্ত বহুবার হ্যাটট্রিক নেওয়ার ঘটনা ঘটেছে, এরমধ্যে কেবল তিনজন ভারতীয় বিশেষ কৃতিত্বটি অর্জন করেছেন। এই দীর্ঘ সংস্করনের খেলায় পরপর তিন বলে উইকেট হারালে প্রতিপক্ষ দল যথেষ্ট চাপের মধ্যে পড়তে দেখা যায়। এবার বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক:

হরভজন সিং: ২০০১ সালে ইডেন গার্ডেনে অনুষ্ঠিত অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচটি ঐতিহাসিক টেস্ট হয়ে রয়েছে। কারণ একই ম্যাচে ভিভিএস লক্ষণের ২৮১ রানের ইনিংস ও হরভজন সিংয়ের হ্যাটট্রিক দুই-ই অস্ট্রেলিয়া দলকে চাপে ফেলে দেয় এবং ভারতীয় দল ১৭১ রানের বিশাল ব্যবধানে জয়লাভ করে। অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় ইনিংসে হরভজন সিং পরপর তিন বলে রিকি পন্টিং, অ্যাডাম গিলক্রিস্ট ও শেন ওয়ার্নকে ফিরিয়ে দিয়ে প্রথম ভারতীয় বোলার হিসেবে এই কৃতিত্ব অর্জন করেন।

ইরফান পাঠান: ২০০৬ সালে পাকিস্তান সফরে করাচিতে টেস্টে ভারতীয় দল টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়। ম্যাচের প্রথম ওভারে ভারতীয় ফাস্ট বোলার ইরফান পাঠান হ্যাট্রিক নিয়ে বিরল কৃতিত্ব অর্জন করেন। ওভারের চতুর্থ বলে সালমান বাট, পঞ্চম বলে অধিনায়ক ইউনিস খান এবং ষষ্ঠ বলে মোহাম্মদ ইউসুফকে প্যাভিলিয়নে ফেরান। যদিও শেষ পর্যন্ত পাকিস্তান ৬০৭ রানের টার্গেট দেয় এবং ভারতীয় ২৬৫ রানে গুটিয়ে যায়।

জসপ্রীত বুমরাহ: ২০১৯ আইসিসি বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে জসপ্রীত বুমরাহ হ্যাটট্রিক নিয়েছিলেন। ভারতীয় দল প্রথম ইনিংসে ৪১৬ রান তোলে। এরপর বুমরাহের হ্যাটট্রিকসহ ঝাঁজালো বোলিংয়ে ১১৭ রানে গুটিয়ে যায়। পরপর তিন বলে ড্যারেন ব্রাভো, শমরাহ ব্রুকস ও রোস্টান চেসকে ফিরিয়ে দেন ভারতীয় স্পিডস্টার। এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজের সামনে ৪৬৮ রানের টার্গেট দিলে তারা ২১০ রানে গুটিয়ে যায়।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.