টিম মিটিং ডাকতে হবে দেখছিঃ শাহরুখ খান

আইপিএলের অন্যতম সফল ফ্র্যাঞ্চাইজি কেকেআর। গৌতম গম্ভীরের নেতৃত্বে ২০১২ এবং ২০১৪-য় দু-বার টুর্নামেন্ট চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পাশাপাশি একাধিকবার প্লে অফে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে নাইটরা।

২০১৪-র পরে এখনও একবার চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিততে পারেনি বেগুনি-জার্সির দল। ইয়ন মর্গ্যানের অধিনায়কত্বে কেকেআর কিছুদিন আগেই আইপিএলের ফাইনালে পৌঁছেছিল। যদিও সিএসকের কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয় কেকেআরের।

১৯৩ রানের বিশাল টার্গেট তাড়া করতে নেমে সিএসকে একসময় ৯১/১ তুলে ম্যাচে ভালমতই ছিল। তবে শেষ ১০ ওভারে কেকেআরের রান চেজের গতি লাইনচ্যূত হয়। শেষমেশ কেকেআর ২৭ রানে হেরে রানার্স আপ হয়।

ফাইনালে শেষ পর্যন্ত পৌঁছলেও আইপিএলের প্ৰথম পর্বে মোটেই ছন্দে পাওয়া যায়নি কেকেআরকে। ভারতীয় পর্বে নাইটরা যখন একের পর এক ম্যাচে কঠিন সময় পেরোচ্ছেন, সেই সময় দলের পারফরম্যান্সে নাকি মোটেই সন্তুষ্ট হননি শাহরুখ। তিনি টিম মিটিং-ও ডেকেছিলেন।

এমন ঘটনাই সম্প্রতি প্ৰকাশ করেছেন নাইটদের অন্যতম সহ অংশীদার জুহি চাওলা। সেই টিম মিটিংয়ে নাকি শাহরুখ বেশ রাগত স্বরে একাধিক বিষয় উত্থাপন করে শেষমেশ বলেন, “প্লে ওয়েল”।

“আমি ম্যাচের সময় সমস্ত ভগবানের কাছে প্রার্থনা চালিয়ে যেতাম। এমনকি হনুমানজিকেও ছাড়তাম না। মনে মনে মন্ত্র- গায়ত্রী মন্ত্র পাঠ করতাম। অন্যদিকে, শাহরুখ আমার ওপরে রেগে যেত, বলত- বোলার কেন ফিল্ডারের প্ল্যানিং মেনে বল করছে না! এটা ঠিক হচ্ছে না। টিম মিটিং ডাকতে হবে দেখছি। বিড়বিড় করে ও বলেই যেত। আমি স্রেফ ওখানে কী করব, বুঝতে না পেরে হতভম্ব হয়ে দাঁড়িয়ে থাকতাম।” কপিল শর্মা শো-য়ে জানিয়েছেন জুহি চাওলা।

আরও জানিয়েছেন, “শাহরুখ যা খুশি তাই নিয়ে বকবক শুরু করত, মজা করত, তবে কারোর ওপরে চিৎকার করত না। শেষে ও বলত- প্লে ওয়েল! মিটিং শেষ।” কেকেআর ম্যাচে প্রায়ই শাহরুখের সঙ্গে জুহিকে দেখা যায় গ্যালারিতে। আমিরশাহি পর্বেও দুবাইয়ে উড়ে গিয়েছিলেন বলি অভিনেত্রী।

যাইহোক, নিলামে বড়সড় পরিকল্পনা কষে নামছে কেকেআর। আন্দ্রে রাসেল, বরুণ চক্রবর্তী, সুনীল নারিনের সঙ্গে এবার ভেঙ্কটেশ আইয়ারকে রিটেন করেছে নাইট ম্যানেজমেন্ট। রাসেল ১২ কোটি টাকা পাবেন। বরুণ চক্রবর্তী এবং ভেঙ্কটেশ আইয়ার দুজনে পাবেন ৮ কোটি করে। সুনীল নারিনের নতুন বেতন ৬ কোটি।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.