জামা খুলে ‘অন্তর্বাস’দেখাতে হবে, প্রিয়াঙ্কাকে নোংরা প্রস্তাব পরিচালকের, হস্তক্ষেপ করেন ভাইজান

বলিউড কাঁপিয়ে এখন হলিউডেও বেশ জনপ্রিয় মুখ হয়ে উঠেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। নিজের জীবনের অধিকাংশ দিনই তিনি লাইমলাইটে থেকেছেন, তাঁর জীবনের এই সফরের দারুণ গল্প তিনি শোনাতে চান সকলকে। শুধু প্রিয়াঙ্কাই নয়, বলিউডে টিকে থাকার জন্য সব তারকাদেরই অনেক স্ট্রাগল করতে হয়েছে।

সেই স্ট্রাগল কখনও শারিরীক আবার কখনও মানসিক আবার কখনো আর্থিক দিকেও আঘাত দিয়েছে। সেরকমই নিজের অতীত জীবনের কাহিনী শোনালেন প্রিয়াঙ্কা তাঁর আত্মজীবনী নিয়ে লেখা বই ‘আনফিনিসড’ (Unfinished) এ।

মঙ্গলবারই প্রকাশ পেয়েছে প্রিয়াঙ্কার এই বই। যেখানে তাঁর গ্ল্যামার জগতের অনেক অভিজ্ঞতা, দুঃখ, পিতৃতান্ত্রিক সমাজ এবং পক্ষপাতিত্বের মতো নানা বিষয় তুলে ধরা হয়েছে। বলিউডের নানান অন্ধকার দিক যা তিনি নিজের জীবন দিয়ে অনুভব করেছেন এবং যেসব প্রতিকূল পরিস্থিতি পেরিয়ে তিনি আজ সুপার অভিনেত্রী, সেই সমস্ত কিছুই তুলে ধরেছেন তিনি তাঁর আত্মজীবনীতে যা একসময় তাকে অপদস্ত করে।

নিজের জীবন নিয়ে লেখা বই ‘আনফিনিসড’ নিয়ে ভীষণ উচ্ছ্বসিত অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়াও। ইনস্টাগ্রামে ইতিমধ্যেই বইয়ের ঝলক প্রকাশ করেছেন অভিনেত্রী। ভক্তদের জানান, নিজের বই হাতে পেতে কতটা উৎসুক, অপেক্ষা করতে পারছেন না তিনি।

প্রিয়াঙ্কা এও জানিয়েছেন যে তিনি কোনওভাবেই পাঠকদের কাছে কিছু গোপন রাখতে চান না, এটা তাঁর অভিপ্রায় নয়, প্রিয়াঙ্কা শুধু চান বর্তমানে যেটা সত্যি তাঁর জীবনে সেটা নিয়েই বইতে কথা বলতে। প্রিয়াঙ্কার কথায় একবার এক পরিচালক তাকে অন্তর্বাস দেখানোর জন্য জোর করেছিলেন। সেদিন প্রিয়াঙ্কা বেরিয়ে আসেন শ্যুটিং সেট ছেড়ে।

আবেদনময়ী একটি গান শ্যুটের সময় অভিনেত্রীকে এক এক করে তাঁর পোশাক খুলতে হত। প্রিয়াঙ্কা রাজি না থাকায় পরিচালক সেদিন বলেছিলেন, “যাই হয়ে যাক অন্তর্বাস দেখানোটা প্রয়োজন। নয়তো দর্শকেরা ছবি কেন দেখতে আসবেন?”

পরিচালকের সঙ্গে তুমুল বাকবিতণ্ডার পর ছবিটা হাতছাড়া হয় প্রিয়াঙ্কার। এরপর প্রিয়াঙ্কা অন্য একটি সেটে সেই পরিচালকের সঙ্গে দেখা করেন। সেইসময় প্রিয়াঙ্কার সহ-অভিনেতা সালমান পুরো ব্যাপারটা সামাল দেন।

প্রিয়াঙ্কা এও জানিয়েছেন যে তিনি প্রথমে ভেবেছিলেন নিজের তরুণী স্বত্বাকে তিনি প্রথমে চিঠি লিখে বইয়ের ফরম্যাট তৈরি করবেন। কিন্তু লকডাউনের সময় তিনি উপলব্ধি করেন যে তাঁর জীবনে বেশ কিছু স্মৃতি রয়েছে। এরপর তিনি মনে রাখতে চান এমন স্মৃতিগুলিকে ও মুহূর্তগুলিকে একজায়গায় জড়ো করতে শুরু করেন এবং বইয়ের বিষয়বস্তু তিনি পেয়ে যান।

প্রিয়াঙ্কাকে শেষবারের মতো দেখা গিয়েছে নেটফ্লিক্সে দ্য হোয়াইট টাইগার সিনেমায়। এই সিনেমাটি নিয়ে বহু চর্চা হয়েছে এবং বর্তমানে এটি নেটফ্লিক্সের সবচেয়ে জনপ্রিয় সিনেমা।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.