ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো মুক্তিপ্রাপ্ত ৩ খেলোয়াড়

আইপিএল ২০২২ সালের মেগা নিলামের কাউন্টডাউন শীঘ্রই শুরু হবে। এর আগেই পুরনো অবশিষ্ট থাকা ৮টি ফ্র্যাঞ্চাইজি দল তাদের ধরে রাখা খেলোয়াড়দের তালিকা প্রকাশ করেছে। আসন্ন টুর্নামেন্টের জন্য বিসিসিআই নতুন নিয়মে দলগুলোকে সর্বাধিক চারজন করে খেলোয়াড় ধরে রাখার অনুমতি দিয়েছে।

কোন কোন ফ্র্যাঞ্চাইজি অভিজ্ঞ খেলোয়াড় আবার কেউ কেউ তরুণ খেলোয়াড়দের রিটেন করেছে। আশ্চর্যের ব্যাপার হলো, কয়েকটি ফ্র্যাঞ্চাইজি তাদের অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের ধরে রাখে নি। আইপিএল ২০২২ সালের মেগা নিলামের কথা বলতে গেলে, তিন তারকা ভারতীয় ক্রিকেটার তাদের আইপিএল ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো মুক্তি পেয়েছে। এই প্রতিবেদনে তাদের সম্পর্কে বিস্তারিত জানানো হলো:.

শ্রেয়াস আইয়ার: ২০১৫ সালে ভারতীয় ব্যাটসম্যান শ্রেয়াস আইয়ার দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে আইপিএল খেলা শুরু করেন এবং তিনি অভিষেক মরসুমে ৪৩৯ রান করেন। এরপর ২০১৮ সালে তার পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে দিল্লির নতুন অধিনায়ক হন। দুর্ভাগ্যবশত শ্রেয়াস আইয়ার গতবছর কাঁধের চোটের কারণে অধিনায়কত্ব হারিয়েছিলেন। এরপর ঋষভ পান্থ নেতৃত্ব ভার গ্রহণ করেন। আইপিএল অভিষেকের পর এই প্রথমবার শ্রেয়াসকে মুক্তি দিয়েছে তার দল।

সুরেশ রায়না: ২০০৮ সালে উদ্বোধনী আইপিএল মরসুমে চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে খেলা শুরু করেন সুরেশ রায়না এবং সহ-অধিনায়ক হয়েছিলেন। ধোনির অনুপস্থিতিতে অধিনায়কও হন এবং ২০১৫ সাল পর্যন্ত এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান তার ব্যাটিং এর ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছিলেন। তিনি ২০২১ সাল অব্দি চেন্নাই সুপার কিংসের খেলেছেন। তবে ২০২২ আইপিএল নিলামের আগে তাকে ধরে রাখে নি। অভিষেকের পর এই প্রথমবার সুরেশ রায়নাকে নিলামে উঠতে দেখা যাবে।

হার্দিক পান্ডিয়া: ২০১৫ সালে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে আইপিএলে পা রেখেছিলেন ভারতীয় অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া। প্রতিটি মরসুমে তিনি তার পারফরমেন্সের ধারা বজায় রেখেছিলেন। কিন্তু ২০২২ আইপিএল নিলামের আগে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স তাকে মুক্তি দেয়। তিনি মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের খেলার সময় চার বার চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্য হন। আইপিএল খেলার কারণেই এই অলরাউন্ডার হিসেবে রাতারাতি তারকা হয়ে ওঠেন এবং তার জাতীয় দলের প্রবেশ পথ সহজ হয়েছিল। এবার ২০২২ নিলামে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স তাকে পুনরায় দলে অন্তর্ভুক্ত করবে কিনা সেটাই এখন দেখার বাকি।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.