কোহলির বিষয়ে BCCI তে তুমুল অশান্তি, আচমকাই নিজের পদ থেকে ইস্তফা দিলেন তিনি

ভারতীয় ক্রিকেটে শেষ কিছু দিন ধরে ঝড় বয়ে চলেছে। সম্প্রতি বিরাট কোহলিকে ওয়ান ডে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দিয়েছে বিসিসিআই। তারপর বিসিসিআই এবং বিরাটের বিবৃতির মধ্যে গড়মিল ধরা পড়েছে।

বিসিসিআইয়ের হয়ে সৌরভ গাঙ্গুলির বলা কিছু কথার সম্পূর্ণ বিপরীত কথা বলেছেন বিরাট। এরই মধ্যে বিসিসিআই থেকে আরও একটি বড় খবর বেরিয়েছে। হঠাৎ করেই একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা পদত্যাগ করছেন বিসিসিআই থেকে।

ব্যক্তিগত কারণে বিসিসিআইয়ের চিফ মেডিকেল অফিসারের পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন অভিজিৎ সালভি। সালভি শনিবার একটি সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন যে তার নোটিশের মেয়াদ ৩০শে নভেম্বরই শেষ হয়ে গিয়েছে।

কিন্তু তিনি ভারত ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যে দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচে দলের প্রয়োজনে চুক্তি ছাড়াই কাজ করেছেন। কারণ করোনাকালে কঠিন সময়ে ক্রিকেটারদের নানা বাধা নিষেধের বন্ধনে আবদ্ধ থাকতে হয়। ফলে মানসিক চিকিৎসার বিষয়টি বড্ড গুরুত্বপূর্ণ। তাই দলের প্রয়োজনের সময় বেরিয়ে যেতে চাননি অভিজিৎ।

সালভি নিজে বলেছেন, ‘আমাকে এই পদে কাজ করার যোগ্য হিসাবে বিবেচনা করার জন্য আমি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড-কে ধন্যবাদ জানাই। আমি এই সংস্থার সাথে ১০ বছর কাজ করেছি। ভবিষ্যতেও হয়তো এই কাজের সাথেই যুক্ত থাকতাম কিন্তু করোনাকালে কাজের চাপ বড্ড বেড়ে গিয়েছিল এবং এখন আমি নিজেকে এবং পরিবারকে সময় দিতে চাই। তাই মনে করেছি এটাই সঠিক সময় সরে যাওয়ার।’

সালভিকে অস্ট্রেলিয়া থেকে শুরু করে চলতি বছরের শ্রীলঙ্কা সফর সহ বেশ কয়েকটি সফরে দলের প্রয়োজনে ট্র্যাভেল করতে হয়েছিল। শুধু তাই নয়, অভিজিৎ আইপিএল ২০২১ এবং ভারতের বদলে বিসিসিআই কর্তৃক সংযুক্ত আরবশাহিতে হওয়া টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কোহলি-রোহিতদের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত যাবতীয় খুঁটিনাটি এবং চিকিৎসা ব্যবস্থার তত্ত্বাবধানে থাকতে হয়েছিল।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.