একনজরে দেখুন মেসির ২০২১ সালের অবিশ্বাস্য ৫ রেকর্ড

মাঠে লিওনেল মেসির নামা মানেই যেন নতুন নতুন রেকর্ড। কখনো ক্লাবের হয়ে কখনো বা আর্জেন্টিনা দলের হয়ে রেকর্ড ভাঙা গড়ার মধ্যেই থাকেন মেসি।

৩৪ বছর বয়সেও মাঠের পারফরম্যান্সে তরুণদের চেয়ে অনেক তিনি। চলতি বছরেই ৫টি অনন্য রেকর্ড গড়েছে মেসি।

আর্জেন্টিনার হয়ে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার রেকর্ড

আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার রেকর্ডটি গড়েছেন মেসি। এর আগের রেকর্ডটি ছিল হ্যাভিয়ের মাসচেরানোর। কোপা আমেরিকার গ্রুপপর্বে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে মাঠে নেমে মাসচেরানোর ১৪৭ ম্যাচ খেলার রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলেন মেসি। মেসি এরপর আরও ১০ ম্যাচ খেলেছেন। বর্তমানে তার ম্যাচসংখ্যা ১৫৮।

দক্ষিণ আমেরিকার সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড

চলতি বছর ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলেকে পেছনে ফেলে দক্ষিণ আমেরিকার সর্বোচ্চ ৭৭ গোলের রেকর্ড গড়লেন মেসি। বলিভিয়ার বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে হ্যাটট্রিক করে এই রেকর্ড নিজের করে নেন তিনি। বর্তমানে আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে মেসির গোল ৮০টি।

এক লিগে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড

পেলের আরো একটি রেকর্ড ভেঙে দিয়েছেন মেসি। এক ক্লাবের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৬৯ গোলের রেকর্ডটা ছিল এই কিংবদন্তির। চলতি বছরের শুরুর দিকে বার্সেলোনার জার্সি গায়ে ৪৭৪ গোল করে সে রেকর্ডটা নিজের করে নেন মেসি।

প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে সাত ব্যালন ডি’অর

এবারের ব্যালন ডি’অর বায়ার্ন মিউনিখের লেওয়ানডস্কির ভাগ্যে জুটবে বলে ধারণা করা হচ্ছিল। কিন্তু ভোটাভুটির বর্ষসেরা এই পুরস্কারটি উঠে মেসির হাতেই।

৭টি ব্যালন ডি’অর এখন মেসির ঝুলিতে। ইতিহাসের প্রথম ফুটবলার হিসেবে এই কীর্তি গড়েছেন তিনি। এর আগের রেকর্ডটাও অবশ্য ছিল তারই। ২০১৯ সালে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে জিতেছিলেন ছয়টি ব্যালন ডি’অর। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর ঝুলিতে এখন পর্যন্ত জমা পড়েছে পাঁচটি ব্যালন ডি’অর।

প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে তিন দশকে ব্যালন ডি’অর জয়

২০২১ সালের ব্যালন ডি’অর জিতে আরেকটি অনন্য রেকর্ডের খাতায় ঢুকে পড়েছেন লিওনেল মেসি। প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে তিন দশকে ব্যালন ডি’অর জয় হলো তার।

২২ বছর বয়সে ২০০৯ সালে নিজের প্রথম পুরস্কারটি জেতেন মেসি। এরপর টানা তিন বছর ২০১০, ২০১১, ২০১২ সালে জেতেন। ২০১৫, ২০১৯ সালের ব্যালন ডি’অর দুটিও নিজের করে নেন। সর্বশেষ জিতলেন ২০২১ সালে। এরই ফলে গড়া হয়ে গেছে অনন্য রেকর্ড। প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে ভিন্ন তিনটি দশকে ব্যালন ডি’অর জয়ের কীর্তি গড়েছেন তিনি।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.