আইপিএলের ১০ দল থেকে বাদ যেতে পারে যে ১টি দল

আহমেদাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে এখনও সরকারিভাবে কিছু ঘোষণা করেনি বোর্ড। তবে বোর্ডের চিন্তা রয়েই গিয়েছে।

একাধিক প্রতিবেদনে প্রায় রোজ-ই জানানো হচ্ছে, আহমেদাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজি নাকি হার্দিক পান্ডিয়া, ক্রুনাল পান্ডিয়া, শ্রেয়স আইয়ার, শিখর ধাওয়ানদের মত তারকাদের নিলামের আগেই সই করাচ্ছে।

ঘটনা হল, ক্রিকেটার সই করানোর বিষয়ে নাকি এখনও বোর্ডের সবুজ সঙ্কেতই পায়নি আইপিএলের নয়া আহমেদাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজি।

আহমেদাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজিকে বোর্ড আদৌ আইপিএলে অংশ নেওয়ার অনুমতি দেবে কিনা, তা নিয়েও বেশ ভালমত জল্পনা তৈরি হয়েছে। সূত্রের খবর, এই কারণেই নাকি আইপিএলের মেগা নিলামের দিনক্ষণ এখনও সরকারিভাবে ঘোষণা করেনি বোর্ড।

কয়েক সপ্তাহ আগেই নিলামে অংশ নিয়ে আহমেদাবাদ এবং লখনৌ ফ্র্যাঞ্চাইজি আইপিএলে অন্তর্ভুক্তি পায়। লখনৌ ফ্র্যাঞ্চাইজি কিনে নিয়েছে সঞ্জীব গোয়েঙ্কার আরপিএসজি গ্রুপ।

অন্যদিকে, আহমেদাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকানা পায় ইরেলিয়া কোম্পানি প্রাইভেট লিমিটেড। অক্টোবরের ২৫-এ ৫৬২৫ কোটি টাকা খরচ করে আহমেদাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজি কিনে নেয় ইরেলিয়া প্রাইভেট লিমিটেড।

তবে সমস্যার সূত্রপাত সিভিসি ক্যাপিটালসের (ইরেলিয়া গ্রুপ প্রাইভেট লিমিটেড) সঙ্গে বেটিং কোম্পানিতে বিনিয়োগ করার যোগসূত্র পাওয়া গিয়েছে।

আইপিএলের প্রাক্তন চেয়ারম্যান ললিত মোদিও এই নিয়ে সরাসরি বোর্ডের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন প্রকাশ্যে। এই ঘটনা পুরোপুরি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বোর্ডের তরফে। সেই জন্যই এখনও বিসিসিআইয়ের তরফে কোনও সরকারি বিবৃতি প্ৰকাশ করা হয়নি। এমনটাই খবর ইনসাইড স্পোর্টসের প্রতিবেদনে।

ঘটনা হল, প্লেয়ারদের রিটেন করার ডেডলাইন ৩০ নভেম্বর। এই তারিখের মধ্যে সমস্ত ফ্র্যাঞ্চাইজিকে জানিয়ে দিতে হবে, কোন কোন ক্রিকেটারকে তাঁরা রিটেন করবে।

সমস্ত রিলিজ করা প্লেয়ারদের তালিকা প্রকাশ পাওয়ার পরে নতুন দুই ফ্র্যাঞ্চাইজি- আহমেদাবাদ এবং লখনৌ তিনজন করে ক্রিকেটার সই করাতে পারবে নিলামের আগেই।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *